Blog Details

কোটি টাকার মালামালসহ ট্রলার ডুবি

কোটি টাকার মালামালসহ ট্রলার ডুবি

হাইরাজ মাঝি, তালতলী : তালতলীর পায়রা নদীর মোহনায় প্রায় কোটি টাকার মালামালসহ একটি মালবাহী ট্রলার ডুবে গেছে। তবে এঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।


শনিবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে উপজেলার পায়রা নদীর মোহনায় এ ঘটনা ঘটে।


পানিতে ভেসে গেছে কোটি টাকার মালামাল। এ ঘটনায় রাত ১১ টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে তারা উদ্ধার কাজে কোন ধরনের সহযোগিতা করতে পারেননি।


শনিবার বেলা ১ টার দিকে জেলা সদর বরগুনা ঘাট থেকে তালতলীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। পর রাত ৮ টায় তালতলী ঘাটে প্রবেশদ্বার মোহনায় আসার সময় ডুবো চরে ধাক্কা লেগে ট্রলারটি কাত হয়ে ডুবে যায়। এ সময় ট্রলারে সাপ্তাহিক হাট-বাজারসহ বিভিন্ন বাজারের ৩০-৪০ জন ব্যবসায়ীদের প্রায় এক কোটি টাকার বিভিন্ন মালামাল ছিল। এই  মালামাল ভেসে যায় নদীর পানিতে। পানির তলদেশে ট্রলারটি ডুবে থাকে। ট্রলারে থাকা চার কর্মচারী সাঁতার কেটে কিনারে আসেন। তবে শেষ খবর পাওয়া পযন্ত ট্রলাটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।


এ সময় কয়েকটি শাড়ী-লুঙ্গীর বান্ডেল, সুতার  বান্ডেল, ওষুধের কার্টুন, মুদি মালসহ উদ্ধার করলেও পিয়াজ, চাল,ডাল, তৈল, হার্ডওয়ারের মালসহ দামি মালামাল পানিতে ডুবে যায়। প্রতিটি ব্যবসায়ীদের প্রায় ৩ থেকে ৪ লাখ টাকার মালামাল পানিতে ডুবে যায়।


স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ ট্রলারটিতে মাত্রাতিরিক্তি মালামাল বোঝাই দেয়া ও হেল্পার দিয়ে ট্রলার চালানোর কারণে মোহনায় ডুবো চরের সাথে ধাক্কা লাগায় ট্রলারটি কাত হয়ে গিয়ে ডুবে যায়।


ট্রলারের মালিক জামাল মাঝি বলেন, বরগুনা থেকে সাপ্তাহিক মালামাল নিয়ে তালতলীতে রহনা হই। পরে পায়রা নদীর মোহনায় থেকে খালে প্রবেশের সময় ডুবো চরে ধাক্কা লেগে ট্রলারটি কাত হয়ে ডুবে যায়। তবে টলারে থাকা কর্মচারীরা সাঁতার কেটে কিনারে আসেন। তিনি আরও বলেন দক্ষ চালকেই ট্রলারটি চালিয়েছে। 


ব্যবসায়ী মজনু বলেন, আমার চাল ও চিনি ছিলো ২০০ বস্তা। সব মিলিয়ে ৬ লাখ টাকার মালামালসহ ট্রলারটি নদীর মোহনায় ডুবে যায়। তবে ট্রলারটি আয়তনে ছোট কিন্তু অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই করে নিয়ে আসাতে এমন ঘটনা ঘটেছে। এই ট্রলারে তালতলীর প্রায় ২৫-৩০ ব্যবসায়ের বিভিন্ন মালামাল ছিল। এই ব্যবসায়ীদের প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।


তালতলী ফায়ার সার্ভিস কমান্ডার আক্তার উদ্দিন বলেন,ট্রলার ডুবিতে আমাদের করার কিছু নাই। যদি লোক নিখোঁজ থাকতে তাহলে আমরা খোঁজখবর নেওয়ার চেষ্টা করতাম। এছাড়া আমাদের এখানে ট্রলার উদ্ধার করার কোনো যন্ত্র নেই। আমরা শুধুমাত্র ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে আসছি।

Leave a Reply

%d bloggers like this:

developed by:Md Nasir