Blog Details

তালতলীতে মসজিদের ব্যাটারী চুরি করায় স্বামীকে তালাক দিয়েছে স্ত্রী

তালতলীতে মসজিদের ব্যাটারী চুরি করায় স্বামীকে তালাক দিয়েছে স্ত্রী

লোকবেতার ডেস্ক : বরগুনার তালতলীতে মসজিদের ব্যাটারি চুরি করায় কাজী ডেকে স্বামীকে তালাক দিয়েছেন স্ত্রী।
শনিবার (২৬ মার্চ) তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের বড়ইতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিগত ২০০০ সালে নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের বড়ইতলী আবাসেনর বাসিন্দা মাসুমা বেগমের ( ৪৬) প্রথম স্বামী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়। এর পর ২০০৭ সালে বরগুনার বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ি ইউনিয়নের  শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে ফোরকানের সঙ্গে মাসুমার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। তারপর থেকেই আবাসনে বসবাস শুরু করেন তারা। বিয়ের পর থেকেই ফোরকান কোনো কাজকর্ম না করে বিভিন্ন স্থানে স্ত্রীর অজান্তে চুরি করতেন বলে জানা যায় । তবে বিভিন্ন সময়ে সংসারে ঝামেলা বেধেই থাকতো। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার ভোর রাতে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের মধ্য পাওয়াপাড়া জামে মসজিদ ও পাওয়া পড়া দোকানঘাট জামে মসজিদ থেকে তিনটি সৌর বিদ্যুতের ব্যাটারি চুরি করে ফোরকান। ব্যাটারিগুলো প্লাস্টিকের বস্তায় করে বিক্রির উদ্দেশ্যে বরগুনা যাওয়ার পথে ছোট বগী খেয়া ঘাট বসে স্থানীয় স্বপন মৃধার সন্দেহ  হয়। এরপর তার নাম ও ইউপি সদস্যকে জানতে চেয়ে ফোরকানকে জিজ্ঞেস করেন। তখন নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম জোমাদ্দারের কাছে ফোন দিলে তিনি ফোরকানকে আটক করতে বলেন। এরপর স্থানীয়রা ফোরকানকে আটক করলে  ফোরকান স্বীকার করেন এই ব্যাটারি মসজিদ থেকে চুরি করেছে। পরে ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম জোমাদ্দার ও মসজিদ কমিটির  কাছে ফোরকানকে হস্তান্তর করেন।

এদিকে এ নিয়ে বড়ইতলী আবাসনে স্থানীয়ভাবে সালিশ মীমাংসার জন্য বৈঠক বসা হয়। ওই বৈঠকে স্বামী ফোরকান মসজিদের ব্যাটারি চুরি করার অপরাধে তার সাথে স্ত্রী মাসুমা বেগম সংসার না করার সিদ্ধান্ত নেয় । পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের ও ইউপি সদস্যদের উপস্থিতিতে ঔ ইউনিয়নের কাজী মহিবুল্লাহকে ডেকে স্বামীকে তালাক দেন স্ত্রী। পরে ব্যাটারিগুলো মসজিদ কমিটিকে ফেরত দেওয়া হয়েছে ও ফোরকানকে পুলিশে না দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম জমাদ্দার বলেন, মসজিদের ব্যাটারি চুরি হওয়ার বিষয়টি মুসুল্লিরা প্রথমে আমাকে জানায়। পরে বগীতে স্থানীয়রা ব্যাটারি চোরকে আটক করে আমাকে খবর দেয়। আমি গিয়ে সহজ চোর হাতেনাতে আটক করে নিয়ে আসি। পরে স্থানীয়ভাবে বৈঠকের সময় তার স্ত্রী চোর স্বামীর সাথে ঘরসংসার করবে না বলে কাজী ডেকে তালাক দেয়। 

স্ত্রী মাসুমা বেগম বলেন, স্বামী আল্লাহর ঘর মসজিদ থেকে ব্যাটারি চুরি করতে পারে, তার সাথে আর যাই হোক ঘর সংসার করা যায় না। এজন্য কাজী থেকে সাথে সাথেই তাকে তালাক দিয়েছি।

কাজী মুহিব্বুল্লাহ বলেন, মাসুমা বেগমের স্বামী ফোরকান মসজিদের ব্যাটারি চুরি করার অপরাধে তাকে শরীয়ত মোতাবেক তালাক দেয়।

এ বিষয়ে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন থানায় কেউ অভিযোগ করেনি।  অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this:

developed by:Md Nasir